Connect with us

Bangla Serial

Mithai: সিধাই দু’বার করে বেবিই ডাউনলোড করে ফেললো অথচ শ্রী-রাতুল আর রূদ্র-নীপার বেবিই ডাউনলোড এর কোনো হুঁশ নাই! সোম দা আর বৌদিমনি এখনো ভার্জিন থেকে গেলো! কী অনাসৃষ্টি

Published

on

“মিঠাই” ধারাবাহিকে কে ভা’র্জিন আর কে ভা’র্জিন নয়, সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই তালিকা প্রকাশ!

বাংলার ধারাবাহিকের ক্রেজ যে কতটা হতে পারে তা জি বাংলার (Zee Bangla) “মিঠাই” (Mithai) প্রমাণ করে দিয়েছে। শুধু বাংলা তো নয়ই, ভারতবর্ষ ছাড়িয়ে পৃথিবীতে এর ক্রেজ শুরু হয়ে গিয়েছে। সুদূর আফ্রিকা থেকে মিঠাইয়ের অনুরাগীদের দেখা মিলেছিল। তাহলে মিঠাই নিয়ে এই বাংলার লোকেরা কত ভাবে বলুন তো!

প্রসঙ্গত মিঠাই এবার শেষের দিকে। তবে এটাতো মানতেই হবে জি বাংলার মিঠাই সিরিয়াল ধারাবাহিক প্রেমীদের একসঙ্গে অনেক কিছুর রসদ জুটিয়ে দিয়েছে। যেমন অনেক অনেক ভালোবাসার মিষ্টি মুহূর্তের উপহার দিয়েছে, তেমনই দর্শকদের কিন্তু বেশ ভালো মতো ধৈর্য্যের পরীক্ষা নিয়েছে। আর এতেই কিন্তু মাঝে টি আর পি পড়তে শুরু করে এককালে টি আর পি শীর্ষে রাজ করা ধারাবাহিকের।

তবে এবার অনেক কিছুর পর অবশেষে দর্শকদের মনে একটু শান্তি হয়েছে। আসলে মিঠাই বরাবরই দর্শকদের খুব মিষ্টি মিষ্টি মুহূর্ত উপহার দিয়েছে। কিন্তু ওই মাঝে মধ্যেই নানা লোকে এসে সুখেরে জীবনে কাঠি করতো। এবার যেহেতু সংসারের বহু লোকই মিঠাই সিদ্ধার্থের জন্য এত খারাপ সময় তৈরি করেছে তাদের ওপর দর্শকদের একটা রাগ তো থাকবেই।

আর এই নিয়েই দর্শকরা কিন্তু মাঝে মধ্যে নানারকম ইয়ার্কি করে থাকে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এক ইউজারকে মিঠাইয়ের যে দাম্পত্য সম্পর্কগুলো আছে সেইগুলি নিয়ে বেশ ইয়ার্কি ঠাট্টা করতে দেখ গেল। আর ওই ইয়ার্কির সঙ্গে কিন্তু অনেকেই সায় দিয়েছে। আসলে দর্শকরা কতটা ভালোবাসলে একটা ধারাবাহিককে এতটা খুঁটিয়ে দেখতে পারে।

এই মুহূর্তে মিঠাই ও সিদ্ধাথের শাক্য ও মিষ্টিকে নিয়ে ভরা পরিবার। ওই সোশ্যাল মিডিয়া ইউজার এক্ষেত্রে একটি টার্ম ব্যবহার করেছেন, “বেবি ডাউনলোড”। তো তিনি লিখেছেন, “সিধাই দু’বার করে বেবি ডাউনলোড করে ফেলল”। তবে পরিবারের বাকিদের ক্ষেত্রে যেমন লিখেছেন, “শ্রীরাতুল রুদ্রীপার বেবি ডাউনলোডের কোনও হুসই নেই”।

আর এককালে শুধুমাত্র সিদ্ধার্থের ওপর নজর দেওয়ার কারণে মনোহরাতে আসবে বলে বাধ্য হয়ে সোমদাকে বিয়ে করেছিল যে কুখ্যাত বৌদিমণি, তার কথা কীকরে ভুলে যাবে মিঠাই অনুরাগীরা। এমনিতেই মিঠাই বৌদিমণির ওপর রাগের শেষ নেই। তাই তার বেলায় লিখেছেন, “ওদিকে সোমদা আর বৌদিমণি তো এখনও ভা’র্জিন”।

Trending