‘কৌশাম্বী আমার কে হয় জানেন?’, নিজের মুখেই দিদিয়ার সঙ্গে আসল সম্পর্ক তুলে ধরলেন আদৃত রয়, গুজবটাই সত্যি হলো নাকি? – Tolly Tales
Connect with us

Bangla Serial

‘কৌশাম্বী আমার কে হয় জানেন?’, নিজের মুখেই দিদিয়ার সঙ্গে আসল সম্পর্ক তুলে ধরলেন আদৃত রয়, গুজবটাই সত্যি হলো নাকি?

Published

on

টলিপাড়ায় নিত্যনতুন সম্পর্ক গড়ে ওঠে আবার সম্পর্ক ভেঙেও যায়। তারকাদের মধ্যে সম্পর্ক নিয়ে কানাঘুষা চলতেই থাকে, সেগুলো চুটিয়ে উপভোগ করে সাধারণ মানুষ। প্রায়শই আমরা সংবাদমাধ্যমে দেখতে পাই যে এর সঙ্গে এর ব্রেকআপ হয়ে গেল। টলিপাড়ার তারকাকে নিজেদের মধ্যে বোধহয় খুব একটা ফারাকও পড়ে না এসব বিষয়ে।

গত দু-তিন দিন ধরে ফেসবুক এবং সংবাদমাধ্যম উত্তাল দুটো ব্রেকআপ এর কারণ ঘিরে। প্রথমটা হল সোহিনী সরকার এবং রণজয় বিষ্ণু। অভিনেত্রী সোহিনীকে আমরা এখন মূলত সিনেমা আর ওয়েব সিরিজেই দেখতে পাই অন্যদিকে অভিনেতা রণজয় বিষ্ণুকে আমরা দেখতে পাচ্ছি স্টার জলসার গুড্ডি সিরিয়ালে।দুজনের মধ্যে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক এবং দুজনের লিভ ইন করছিলেন কিন্তু হঠাৎ করে গত পরশু সোহিনী ইনস্টাগ্রামে স্ট্যাটাস দেন এবং লেখেন যে আমি একা এবং এই একাকীত্ব আমি উপভোগ করছি।হঠাৎ করে তার এই বক্তব্য দেখে চমকে যায় সকলে এবং রণজয় কে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন যে আসলে এখন দুজনে ব্যক্তিগত কারণে আলাদা বাড়িতে থাকছি তো তাই বোধহয় অভিমান করে এসব লিখেছে। যদিও তাদের দুজনের মধ্যে যে তাল কেটেছে একথা স্পষ্ট।

এর পরে আসি সৃজলা গুহ এবং রোহন ভট্টাচার্যের কথায়। স্টার জলসা পরিবার অ্যাওয়ার্ড সৃজলা যেভাবে অল্প পোশাক পরে নাচ করেছেন শনের সঙ্গে সেই নিয়ে প্রচুর সমালোচনা হয়েছে এবং তার পরেই হঠাৎ করে গুঞ্জন উঠেছে রোহনের সঙ্গে সৃজলার ব্রেকআপ হয়ে গেছে। এর নেপথ্যে রয়েছে শন ব্যানার্জির সঙ্গে সৃজলার সাম্প্রতিক ঘনিষ্ঠতা।যদিও দুজনেই এসব অস্বীকার করেছেন কিন্তু যা রটে তার কিছুটা তো ঘটে।

এর মাঝেই আবার নতুন করে শুরু হয়েছিল আদৃত রয় এবং কৌশাম্বী চক্রবর্তীকে নিয়ে। কৌশাম্বী হলেন নন্দা যিনি সিরিয়ালে সিডের দিদিয়া চরিত্রে অভিনয় করছেন। স্বপ্নে বলতে শুরু করেছিলেন যে আদৃত রয়ের সঙ্গেও তো কৌশাম্বীর প্রেম রয়েছে।
আর এবার এই গুজব শুরু হতে না হতেই আদৃত সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন একটা কাণ্ড করলেন যাতে থোঁতা মুখ ভোঁতা হয়ে গেল সকল হেটার্সদের।আদৃত কৌশাম্বীর সঙ্গে একটা ছবি দেন সোশ্যাল মিডিয়ায় এবং ক্যাপশনে যা লিখেছেন তা দেখে হেসে কুটিপাটি আদৃতের ভক্তরা।

তিনি লিখেছেন যে আমরা হলাম সেই দু’জন যারা কারোর জীবনে নাক গলাই না অথবা কমেন্ট করি না। লোকের কাজ হল বলা আর আমাদের কাজ হল বিন্দাস থাকা। আমার বেস্ট ফ্রেন্ডের সঙ্গে।

এবার কৌশাম্বীও পোস্টটিকে শেয়ার করে প্রায় একই বক্তব্য লেখেন। অর্থাৎ হেটার্সদের মুখে পুরো ঝামা ঘষে দিলেন দুজনে। আদৃতের ভক্তরা খুবই খুশি। তারা বলছেন, শন যেটা পারেননি আদৃত সেটা পারলেন।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Trending