Connect with us

Bangla Serial

EPJNSH: ‘রান্না থেকে মশারি ভাঁজ কিছুই পারে না,তবু কেন উর্মি হল সেরা বৌমা?’ পথের একদল ভক্তদের ট্রোলের পাল্টা দিলেন আরেক দল উর্মি ভক্ত, ‘শয়তানি করে সেরা বৌমা হত রিনি?’ সোশ্যাল মিডিয়ায় ধুন্ধুমার কান্ড!

Published

on

আয় তবে সহচরী চলে গেছে রাত দশটার স্লটে এবং প্রতিপক্ষ হিসেবে আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়ের বিপরীতে এসেছে এক্কাদোক্কা। তবে প্রথম সপ্তাহেই কিন্তু এক্কাদোক্কা প্রায় ছুঁয়ে ফেলেছে পথকে। তাই এখন যদি ধারাবাহিকের দিকে ভালো করে নজর দেওয়া না হয় তাহলে কিন্তু এই পথ আবার স্লট হারাবে।

তবে চিন্তায় পড়ে গেছেন মেডিকেল না কারণ সৌভিক চক্রবর্তী বহুদিন আগে আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয় চিত্রনাট্য লেখা ছেড়ে দিয়েছিলেন এবং এখন জানা যাচ্ছে তিনি সংলাপটাও আর লিখছেন না। তাই আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয় তার পুরনো চার্মটা হারিয়ে ফেলেছে। এমনিতেই যখন সবাই ভেবেছিল যে, আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়তে একটা ইন্টারেস্টিং গল্প আসবে রিনি ভিকিকে বিয়ে করে আসার পর। কিন্তু নিয়ে আসা হল পাড়ার সেরা বৌমা হওয়ার গল্প।

এই জিনিস এই ধারাবাহিকেই আগে দেখানো হয়েছে। ভীষণ বিরক্ত হয়ে গেছিল দর্শকরা। তারপরে প্রোগ্রেসিভ জিনিস দেখানোর বদলে এই পথে রিগ্রেসিভ জিনিস কেন দেখানো হচ্ছে সেটাই বুঝতে পারছেন না দর্শকরা যারা এতদিন ধরে ধারাবাহিকটা দেখে আসছেন।

বৌমা হতে গেলে একজনকে ঘরের সব কাজ রান্নার কাজ জানতে হবে তবেই সে সেরা হবে এরম একটা কনসেপ্ট দেখানো হচ্ছিল। ‌ উর্মি এসব কিছু পারে না কারণ সে সত্যিই ছোট থেকে এসব কিছু শেখেনি। আবার রিনি পড়াশোনা না করে এসব করত। পাড়ার সেরা বৌমা প্রতিযোগিতায় এদের দু’জনের লড়াই সকলেই দেখেছি এবং রিনি সেখানে কী কী বদমাইশি করেছে সেটা আমরা সকলে দেখেছি আর তারপরে নিজের বর ভিকি কে রেখে পালিয়ে গেছে।

এরপরেও কিছু আমাদেরই পথ যদি না শেষ হয় ভক্ত বলতে শুরু করেছেন যে, মশারি ভাঁজ করতে পারেনা রান্না করতে জানেনা অকর্মার ঢেঁকি ঊর্মি কী করে পাড়ার সেরা বউ হয়? এই নিয়ে আবার কিছু নিউজ পোর্টাল খবর করে ফেলেছে। কিন্তু এবার পাল্টা মাঠে নামলেন এই পথ যদি না শেষ হয় এর আসল ভক্তরা।টুকাইবাবু কি বলেছে যে বৌমা হতে গেলে সব সময় রান্না করতে হবে, ঘরের কাজ করতে হবে সেটা নয়, আসল একটা ভালো মানুষ হওয়া, তার পরে বৌমা। রিনি কি সত্যিই ভালো মানুষ?

আপনাদের কাছে এক ভক্তের বক্তব্য হুবহু তুলে দিলাম,বেশ কয়েকদিন ধরেই দেখছিলাম, “আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়” ধারাবাহিকটিকে নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় “গাঁজাখুরি গল্প “, “অবাস্তব”..ইত্যাদি নানা কিছু অভিযোগ! প্রথমে ‘সেরা বৌমা’ নিয়ে ঝামেলা! কেন উর্মি লড়াইয়ে নেমেছে? কেন আর ট্যাক্সি চালাচ্ছে না? তারপর শুরু হল “রিনি তো উর্মির থেকে ঘরকন্নায় বেশি পারদর্শী! তাহলে সেরা বৌমা উর্মি কীভাবে হল! অনেকাংশে লোকজন সম্পূর্ণ এপিসোড না দেখেই ধারাবাহিকের মুন্ডুপাত শুরু করেই দিলেন!

তারই জবাব বোধহয় ধারাবাহিক নির্মাতারা ধারাবাহিকের ৩৪১ নং পর্বে দিলেন! যদি কেউ পর্বটি মন দিয়ে দ্যাখেন হয়তো বুঝবেন! সেখানে দর্শকদের মনে ওঠা সাধারন এই প্রশ্নগুলোকে রিনির সংলাপে বসানো হয়েছে! আর?..আর তার সমস্ত উত্তরগুলো দেওয়া হয়েছে সাত্যকি, হেমন্তবাবু আর মেজকার সংলাপের মাধ্যমে, কেউ যদি সত্যিই ধারাবাহিকপ্রিয়/প্রিয়া হয়ে থাকেন এট্টু মন দিয়ে শুনে নেবেন..আবার অনেকেরই বক্তব্য “শুধু বক্তৃতা দিয়েই মেরে দিল”, হায়রে! শুধু বক্তৃতা দিয়ে, কথা দিয়ে যে কী কী করা যেতে পারে বা যায় তা যদি আপনি জানতেন! আবার অনেকের বক্তব্য ” রিনি জিতলে গল্পের বাঁধুনি অনেক সুদৃঢ় হতো, কিন্তু তিনি এটা খেয়াল করলেন না ধারাবাহিকটি অন্য একটি মেসেজ দিতে চেয়েছে হয়তো! “যে শুধুমাত্র ঘরকন্না দিয়েই নয়, যে পাড়ার সেরা হতে গেলে পাড়ার মানুষ গুলোর প্রানান্তকর বিপদে আগে পাশে দাঁড়ানোর সাহস লাগে! কিন্তু না !

যে রিনি উর্মির নাচের সময় স্টেজে পেরেক ছড়াল, উত্তেজনার বশে গ্যাস অফ করতে ভুলে গিয়ে যার কারনে এত বড়ো একটা বিপদ হলো, সেই ভুলের কথা স্বীকার না করে ক্ষমা না চেয়ে , বরঞ্চ শুধুমাত্র, “পাড়ার সেরা বৌমা” হওয়ার লোভে , সবার সামনে তার ভুলটা চেপে গেল, সবাইকে ফেলে আগেভাগে পালাল নিজেকে বাঁচানোর জন্য তারই কিন্ত “সেরা বৌমা” নির্বাচিত হওয়া উচিত! তাই নয় কী! অনুরোধ রইল, দয়া করে একটু পজিটিভিটি-টাও তুলে ধরুন না! অকারনে নেগেটিভ ভাববেন না! অযথা নেগেটিভিটি না ছড়িয়ে এপিসোড গুলো মন দিয়ে দেখুন, ভালো ফল পাবেন! আর হ্যাঁ, এই ধারাবাহিকের ইউএসপি এই ধারাবাহিকের বেশকিছু সংলাপ…. তাতে যদি একটু মন দেন , তাহলেই অনেক কিছু শুনতে পাবেন… আশাকরি তখন আর ” খালি বক্তৃতা”, “কয়েকটা ইমোশনাল কথা” এই ভাববার অবকাশ পাবেন না, মন ভালো হয়ে যাবে।

এই লাইন ক’টা পড়ুন আর নিজেই বিচার করুন যে রিনি সত্যি সেরকম হওয়ার যোগ্য ছিল নাকি উর্মি?

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending