‘আমি এত সহজে মরছি না, আগের থেকে অনেক ভালো আছি’, ‘ডিপ্রেশনে’ পাঠিয়ে দেওয়া রোহন ভট্টাচার্য এবার মুখ খুললেন সোশ্যাল মিডিয়ায়! – Tolly Tales
Connect with us

Bangla Serial

‘আমি এত সহজে মরছি না, আগের থেকে অনেক ভালো আছি’, ‘ডিপ্রেশনে’ পাঠিয়ে দেওয়া রোহন ভট্টাচার্য এবার মুখ খুললেন সোশ্যাল মিডিয়ায়!

Published

on

গত রবিবার মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটে গেছে টলিপাড়ায়। গরফায় নিজের ফ্ল্যাটে অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে পল্লবী দে নামে জনপ্রিয় টেলি অভিনেত্রীর।ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট বলছে এটা আত্মহত্যা কিন্তু পল্লবীর বাবা মায়ের অভিযোগ যে পল্লবীর প্রেমিক সাগ্নিক চক্রবর্তী এবং তাদের বান্ধবী ঐন্দ্রিলা মুখোপাধ্যায় খুন করেছেন পল্লবীকে।

ঘটনা নিয়ে অনেক জল ঘোলা হয়েছে। ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে পল্লবীর প্রেমিক সাগ্নিক চক্রবর্তীকে এবং তাকে টানা জেরা করা হচ্ছে। আবার পল্লবী দের ফ্লাটের পরিচারিকা সেলিমা সর্দার মুখ খুলেছেন আজকে সকালে।তিনি বলছেন যে ঐন্দ্রিলা মুখোপাধ্যায় পল্লবীর অনুপস্থিতিতে ফ্ল্যাটে এসেছে এবং পল্লবীর সঙ্গে সাগ্নিকের প্রায়শই ঝামেলা হতো।

সব মিলিয়ে ব্যাপারটা ভীষণ ধোঁয়াশাময়। কিন্তু এর মধ্যেই গুজব রটেছিল অভিনেতা রোহন ভট্টাচার্য নাকি ডিপ্রেশনে চলে গেছেন সৃজলার সঙ্গে ব্রেকআপের জন্য এবং তিনিও সুইসাইড করতে চলেছেন তার কারণ তার একটি ইনস্টাগ্রাম স্টোরি।শামসুর রহমানের একটি কবিতার লাইন তিনি লিখেছেন যার অন্তর্নিহিত অর্থ আমিও কাউকে না বলে চলে যাব।

এবার সকলেই এটা ভেবেছেন যে পল্লবী দে’র ঘটনার পরেই তিনি যখন এই ইনস্টাগ্রাম স্টোরি দিয়েছেন তার মানে তার মনে খুব কষ্ট হচ্ছে সৃজলার জন্য আর তাই তিনি সুইসাইড করবেন। এরপরেই রোহনের ভক্তরা সৃজলাকে সোশ্যাল মিডিয়ায় চূড়ান্ত গালিগালাজ করতে শুরু করেন।

কিন্তু আজ একটু আগে রোহন ভট্টাচার্য সোশ্যাল মিডিয়ায় এসে একটি ভিডিও বার্তা দিয়ে পুরো বিষয়টি ক্লিয়ার করে দিয়েছেন। রোহন সাফ জানিয়েছেন যে, তিনি যথেষ্ট ভাল আছেন এবং তার হাতে প্রচুর কাজ কর্ম রয়েছে এখন। কিন্তু এসব গুজব রটেছে বলে তার বাড়ির লোক ভীষণ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। কবিতাটি তিনি পল্লবী দে’র উদ্দেশ্যেই দিয়েছিলেন। নিজে সুইসাইড করবেন বলে দেননি।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Trending