Connect with us

Bangla Serial

Khorkuto: নিজে গিয়ে অর্জুনের বাড়িতে অর্জুনকে বিয়ের প্রস্তাব দিল সাজি! মেয়েরা যে নিজের মনের কথা মুখে এনে নিজেরাই প্রস্তাব দিচ্ছে সেই আধুনিকতা দেখিয়ে দারুণ শিক্ষা দিল খড়কুটো, বলছেন নেটিজেনরা

Published

on

একটা সময় স্টার জলসার খুব জনপ্রিয় ধারাবাহিক ছিল খড়কুটো। এই খড়কুটোর মাধ্যমেই মানুষের কাছে এসেছিল গুনগুন এবং সৌজন্য জুটি। শ্রীময়ী আর খড়কুটো এই দুই ধারাবাহিক স্টার জলসায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছিল আজ থেকে দেড় দুই বছর আগে।তবে শ্রীময়ী কে শেষ করে দেওয়া হয়েছে গত বছর ডিসেম্বরে কিন্তু খড়কুটো এখনো শেষ হতে পারেনি।

এটা চলে গেছে টাটকা দুপুরে। এখনো বহু মানুষ আছে যারা খড়কুটো দেখেন এবং বর্তমানে অর্জুন আসায় অনেকেই আগ্রহ নিয়ে খড়কুটো দেখছেন কারণ গুনগুনের ন্যাকামো তাদের দেখতে হচ্ছে না। সত্যি কথা বলতে অভিষেক চ্যাটার্জি চলে যাওয়ার পর অনেকেই ভেবেছিলেন যে খড়কুটো বন্ধ হয়ে যাবে কিন্তু বন্ধ হয়নি, গল্প চলছে।


বর্তমানে সাজি আর অর্জুনের প্রেম কাহিনী দেখানো হচ্ছে খড়কুটোতে। সাজি একবার ভুল করেছিল স্রোত কে বিয়ে করে তবে তারপর নিজের জীবনকে সে শুধরে নিয়েছে এবং সে এখন কলেজের প্রফেসর। এখন তার জীবনে এসেছে অর্জুন যে তাকে দোয়েল পাখি বলে ডাকে। দুজনে দুজনকে ভালোবাসে কিন্তু মুখ ফুটে কেউ বলতে পারে না। অর্জুন যখন এগিয়ে এসে মেজ কাকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিল তখন সাজি না করে দিয়েছিল‌। অর্জুন মনের দুঃখে বিদেশ চলে যাবে ভেবেছিল‌।মুখার্জি পরিবারের সকলেরই মন খারাপ হয়ে গেছিল কারণ অর্জুনের মতো ভালো ছেলেই সাজির জন্য পারফেক্ট ছিল।

তবে সাজি যখন দেখল যে তার ভালোবাসার মানুষটা দূরে চলে যাচ্ছে তাই নিজে গিয়েই অর্জুনের কাছে বিয়ের প্রস্তাব দিল। আসলে সাজির রাগ হয়েছিল অর্জুন তাকে আগে না বলে মেজ কাকাকে কেন বলল? তবে মুখার্জি পরিবারের সকলেই আড়াল থেকে দেখছিল এবং যেই অর্জুন রাজি হয়েছে বিয়ের জন্য ওমনি মিষ্টির হাঁড়ি নিয়ে সবাই ঢুকে পড়েছে হই হই করে।


এই জিনিসটা সকলের খুব ভালো লেগেছে।সাধারণত আমরা দেখে থাকি ছেলেরাই সবসময় মেয়েদের বিয়ের প্রস্তাব দেবে।বর্তমানে আধুনিকতার যুগ এবং মেয়েরা অনেক এগিয়ে গেছে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে।সাজি একজন কলেজের প্রফেসর এই নিজের ভালোবাসার কথা এবং বিয়ে করার ইচ্ছার কথা সে নিজে এসে অর্জুনকে বলে ঠিক কাজ করেছে বলে অনেকেই জানাচ্ছেন।তবে যথারীতি প্রাচীন পন্থী মানুষরা বলছেন যে একটা মেয়ে একটা ছেলেকে বিয়ের প্রস্তাব দিল এটা কি হ্যাংলামো নয়?


কিন্তু এসব কথা ধরতে নারাজ সাজি এবং অর্জুনের জুটির ভক্তরা। তারা বলছেন যে দুজনেই দুজনকে ভালোবাসে তাহলে আগেই শুধুমাত্র অর্জুন কেন সাজিকে বলবে বিয়ের জন্য? সাজি কি অর্জুনকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে পারেনা? মেয়ে বলে কি সব সময় তাকে অপেক্ষা করতে হবে কখন ছেলেটা প্রস্তাব দেবে? গল্পের এই ট্র্যাকটা খুব পছন্দ হয়েছে সকলের।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending