Connect with us

Bangla Serial

Mithai: এই পাঁচটা কারণেই মিঠাইকে আর সহ্য করতে পারছেন না দর্শকরা! এখনই যদি বদলানো না হয় তাহলে আর কেউ দেখবেন না মিঠাই

Published

on

গত বছর মোটামুটি এপ্রিল মে মাস থেকে বাংলা ধারাবাহিক জগতে রাজত্ব করছিল মিঠাই রানী। টানা প্রায় ৪৫ সপ্তাহ মিঠাই টিআরপি রেটিং তালিকায় প্রথম স্থান দখল করেছিল তবে তারপরে যেই ছড়ালো তখন থেকেই মিঠাইয়ের স্থান নড়বড়ে হতে শুরু করল। তারপর আলতা ফড়িং তার জায়গা কেড়ে নিল আবার কখনো ধুলোকণা। এমনকি গাঁটছড়াও বারে বারে হারিয়েছে মিঠাই কে তবে গত সপ্তাহে যেটা হলো সেটা ভাবনা-চিন্তার বাইরে।

মিঠাই সোজা পঞ্চম স্থানে চলে গেল এমনকি গৌরী এলো পর্যন্ত হারিয়ে দিল মিঠাইকে। মিঠাই আর লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার এর নম্বর এক। কেন মিঠাইয়ের এই পরাজয় এবং অবনতি তা অনেক ভাবনা চিন্তা করে বার করেছেন মিঠাইয়ের একনিষ্ঠ ভক্তরা যারা নিরপেক্ষভাবে সমালোচনা করতে জানেন।

আসুন জেনে নেওয়া যাক সেই কারণগুলো কী কী‌। প্রথম হলো দীর্ঘ দুমাস ধরে মিঠাইয়ের কোন প্রোমো ছিল না। সেই জন্য টিআরপি হু হু করে কমেছে। প্রোমো এসেছে অনেক পরে, যেখানে গৌরী এলো প্রতি সপ্তাহে প্রোমো দিয়েছে। এরপর দ্বিতীয় কারণ হিসেবে বলা যেতে পারে যে ধুলোকণার হঠাৎ অতিরিক্ত জনপ্রিয়তা। লালন এবং ফুলঝুরির বিয়ে দেখিয়ে তুমুল জনপ্রিয় হয়ে গেছে ধুলোকণা সেখানে দাঁড়িয়ে মিঠাই কোনো ইন্টারেস্টিং গল্প দেখাতেই পারেনি। যেখানে সিড মিঠাইয়ের রোমান্সকে দেখানোই হচ্ছে না ওদিকে লালন ফুলঝুরির ভালোবাসাকে সম্বল করে প্রথম হয়ে গেল ধুলোকণা।তবে অনেকে বলছেন সিড আর মিঠাই রোমান্স করবে কখন? সারাক্ষণ তো তাদের ঘরে অন্যরা ঢুকে বসে থাকে।

তার ওপর মিঠাইয়ের এই স্পোকেন ইংলিশ শিখেও ভুলভাল উচ্চারণ ইংলিশ বলা চড়া মেকআপ করে অদ্ভুত অঙ্গভঙ্গি করা মানুষ আর নিতে পারছেন না। চোখ মুখ ঘুরিয়ে কোমরে হাত দিয়ে সে এমনভাবে মুখ ভেংচায় যে দেখলে মাঝে মাঝে সত্যিই মাথা গরম হয়ে যায়। ফুলঝুরি বস্তির মেয়ে থেকে নিজেকে কীভাবে পাল্টেছে সেটা দেখে মিঠাই শিখুক বলছেন নেটিজেনরা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by SOUMITRISHA (@soumitrishaofficial)

এছাড়া আরো অনেক কারণ আছে। রুদ্র আর নীপার সম্পর্কটাকে ঠিক করে গড়ে তোলা হচ্ছে না। তোরসা ঠিক কী করতে চাইছে সেটা বোঝা যায় না। দীর্ঘদিন ধরে সোম অনুপস্থিত। হতে পারে তিনি অন্য ধারাবাহিকে আছেন কিন্তু তোর্সা আর সোম ফোনে কথা বলছে এরকম তো কোনো দৃশ্য রাখা যেতেই পারত‌।

তবে সব থেকে বড় কারন টা হল ব্যক্তিগত জীবনে মিঠাই সিদ্ধার্থ এবং নন্দার মধ্যে ঝামেলা। যেটা ফুটে উঠছে তাদের অনস্ক্রিন সমীকরণে।তাই সব মিলিয়ে এখনই যদি এইসব বিষয়গুলো তো নজর না দেওয়া হয় তাহলে মিঠাইয়ের টিআরপি আরো কমবে ভবিষ্যতে।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending