Connect with us

Entertainment

‘নতুন দাদাভাইকে বেশ ভালো লাগছে’, এই পথ যদি না শেষ হয়’তে অরিন্দ্যর থেকে বিশ্ববসুর অভিনয় বেশি প্রিয় হয়ে উঠেছে নেটিজেনদের কাছে

Published

on

জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো এই পথ যদি না শেষ হয়। মিঠাইয়ের সঙ্গে সমান সমানভাবে জনপ্রিয় এই পথের নায়িকা উর্মি। তাই তো জি বাংলাকে সেরা পরিবারের সম্মান এই দুই ধারাবাহিককেই দিতে হয়েছে। তবে শুধুমাত্র উর্মিকেন্দ্রিক ধারাবাহিক নয় এটি। সরকার পরিবারের প্রত্যেকেই এখানে গুরুত্বপূর্ণ।

এছাড়াও উর্মির নিজের বাড়ির চরিত্রদেরও যথেষ্ট ডিটেলে দেখানো হয় এই ধারাবাহিকে। মামণি আর কাকা তো মেন ভিলেন। উর্মির মা ঠিক কোনদিকে যাবেন বুঝতে পারেন না। দাদু,ছোট কাকা আর কাকিমা উর্মিকে খুব ভালোবাসেন। আর রইল দাদাভাই, কাকা মামণির একমাত্র ছেলে কিন্তু ভীষণ সরল আর বোকা। পয়সা ওড়ানোতে ওস্তাদ কিন্তু মনটা বড্ড ভালো। উর্মিকে খুব ভালোবাসে। তাই তো এখন সংসারে থাকে সে। তার দুর্বলতা রিনির উপর এবং মনে হচ্ছে রিনিকে বিয়ে করে সে সরকার বাড়িতে নিয়ে আসবে শীঘ্রই।

প্রথমে দাদাভাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করছিলেন অরিন্দ্য ব্যানার্জি। তবে এখন আয় তবে সহচরীতে অরিন্দ্যর ভূমিকা অনেকটা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে তাই কাজের চাপে দাদাভাই চরিত্রটি তাকে ছাড়তে হয়েছে। তার বদলে এসেছেন বিশ্ববসু বিশ্বাস যে আগে মিঠাইয়ের স্যান্ডি ছিল।

বিশ্ববসু একদম প্রথমে দাদাভাই হিসাবে যখন এসেছিল তখন তাকে কেউ মানতে পারেনি। কিন্তু যেদিন উর্মি সব সত্যি জানতে পারার পর মামণি এল সরকার বাড়িতে সেদিন দাদাভাইয়ের ভূমিকায় দুর্ধর্ষ অভিনয় করেছিলেন বিশ্ববসু বিশ্বাস। তারপর থেকেই তার অভিনয় সকলের ভালো লাগছে। এখন তো অনেকেই বলছেন, আগের দাদাভাইকে থেকে এই দাদাভাইকেই বেশি ভালো লাগছে।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending