Connect with us

Entertainment

Jeet-Mahanayak Award: হরলিক্স ‘চেটে’ই আজ ‘মহানায়ক’ সোহম চক্রবর্তী! কোন রাজনীতি করেন না বলেই আজ সুপারস্টার জিতকে দেওয়া হলো না মহানায়ক সম্মান! রেগে লাল বাংলাদেশের ভক্তরাও

Published

on

বর্তমানে রাজনীতির সঙ্গে অভিনয় জগতটা ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে রয়েছে। বহু মানুষ অভিনয় থেকে রাজনীতিতে চলে যাচ্ছেন ভবিষ্যতের ক্যারিয়ার অপশন হিসেবে। তবে রাজনীতি থেকে অভিনয়ে এসেছেন সেরকম একটা খুব দেখা যায় না তবে এখন যা রাজনীতির পরিস্থিতি তাতে রাজনীতি করা অভিনয় করার সমান। সাম্প্রতিক হাল হকিকত তো তাই বলছে।

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে মহানায়ক সম্মান বলে একটি পুরস্কারের আয়োজন করা হয়েছে বেশ কিছু বছর আগে যেখানে টলিউড ইন্ডাস্ট্রির সেরা অভিনেতা অভিনেত্রীদের মহানায়ক উত্তম কুমারের নামে পুরস্কৃত করা হয়। প্রথম বছরে যেটা পেয়েছিলেন সুপারস্টার দেব এবং তারপরে সেটা নিয়ে খিল্লি কম হয়নি। তবে দেব বর্তমানে নিজেকে প্রমাণ করেছেন বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করে কিন্তু এই বছরের যে দুজনকে দেওয়া হয়েছে সেই দু’জনকে নিয়ে উঠেছে প্রবল বিতর্ক। নুসরাত জাহান এবং সোহম চক্রবর্তী পেয়েছেন মহানায়ক সম্মান।

আর এটা নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল বিতর্ক। কারণ সত্যিই কি এই দুজন মহানায়ক সম্মানের যোগ্য? প্রত্যেকটা স্তরের মানুষ প্রশ্ন করছেন সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনকি বাংলাদেশের যারা টলিউডের বিভিন্ন প্রোগ্রাম দেখে থাকে নিয়মিত তারাও হতবাক হয়ে গেছেন খবরটা পেয়ে। তাদের মতে নুসরাত জাহান এমন কোন ছবিটা করেছেন যেটার জন্য তাকে মহানায়ক সম্মান দিতে হবে? আবার সোহম চক্রবর্তীর ঝুলিতে ঠিক কোন অভিনয় রয়েছে যে তিনি উত্তম কুমারের নামে পুরস্কার পাবেন তাও আবার সরকারি? অনেক সিনিয়র অভিনেতা অভিনেত্রী ছিল তাদেরকে না দিয়ে নুসরাতকে মহানায়ক সম্মান দেয়ার অর্থ কোথাও গিয়ে স্বজনপোষণ ছাড়া কিন্তু অন্য কিছু বোঝায় না।

এই খবর পেয়ে রাগে ফেটে পড়েছেন সুপারস্টার জিতের ভক্তরা। দেখতে দেখতে কুড়ি বছর হয়ে গেল জিৎ রয়েছেন টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে এবং বিভিন্ন ধরনের চরিত্রে তিনি নিজেকে প্রমাণ করেছেন। তিনি অবাঙালি কিন্তু তার বাংলা কথা শুনলে কেউ বুঝবে না। সাম্প্রতিক অসুর সিনেমায় তার অভিনয় অনবদ্য ছিল। আবার কমার্শিয়াল সিনেমা অ্যাকশন সিনেমাতেও জিৎ হলো বস। জিৎ কোয়েলের জুটির মতো সেরা জুটি টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে খুব কম আসবে। কিন্তু আজ পর্যন্ত জিত কোন সরকারি পুরস্কার পাননি। সকলেই বলছেন এর একটাই কারণ তিনি রাজনীতি করেন না।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Jeet (@jeet30)

জিতকে কখনো কোন রাজনৈতিক দলের প্রচারে বা সদস্য হিসেবে দেখা যায়নি। তিনি ভোটেও নামেননি। কাজ পাওয়ার জন্য তাকে রাজনীতির দ্বারস্থ হতে হয়নি। হয়তো সেই কারণেই জিৎ আজকে মহানায়ক সম্মান পেলেন না।এরকম মনে করছেন তার ভক্তরা বিশেষ করে বাংলাদেশের ভক্তদের দাবি ফিল্ম পলিটিক্স এর শিকার হয়েছেন জিৎ। জিৎ কে নিয়ে কোন বিতর্ক আপনি শুনতে পাবেন না। ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে তিনি অত্যন্ত সুখী,কোয়েলের সঙ্গে এত ছবিতে কাজ কিন্তু কখনো তার সঙ্গে কোয়েলের নাম জড়ায়নি, এতটাই গ্রেসফুল ভাবে তারা কাজ করতেন। তাই অনেকেই বলছেন হরলিক্স চেটে চেটে তো মহানায়ক হয়ে গেলেন সোহম চক্রবর্তী কিন্তু এতে সুপারস্টার জিতের জনপ্রিয়তা কমবে না।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending