‘উচ্চারণ,অভিনয় কিছু জানে না অথচ নায়ক নায়িকা হয়ে যাচ্ছে!’, নবাগতদের বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়ে অভিনয় থেকে বিদায় নিলেন যমুনা ঢাকির শাশুড়ি দেবযানী চ্যাটার্জী – Tolly Tales
Connect with us

Tollywood

‘উচ্চারণ,অভিনয় কিছু জানে না অথচ নায়ক নায়িকা হয়ে যাচ্ছে!’, নবাগতদের বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়ে অভিনয় থেকে বিদায় নিলেন যমুনা ঢাকির শাশুড়ি দেবযানী চ্যাটার্জী

Published

on

আমরা সকলেই এটা মানিয়েছে বাংলা দর্শকদের কাছে বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম বাংলা সিরিয়াল। তবে আগেকার থেকে এখনকার বাংলা সিরিয়ালগুলির গল্প এবং গল্প বলার ধরন অনেকটাই পাল্টে গিয়েছে। আগে যেখানে সমাজের প্রেক্ষাপটে গল্প গুলি তৈরি করা হতো এখন সেখানে স্থান পেয়েছে সাংসারিক কুটকাচালি অথবা পরকীয়ার মতো বিষয়।

বেশিরভাগ সিরিয়ালের ক্ষেত্রেই একই ধরনের গল্প। আর তা না হলে শাশুড়ি-বৌমার মন কষাকষি। এতে যেমন বিরক্ত বাঙালি দর্শক তেমনই বেশ বিরক্ত হয়ে উঠেছেন অভিনেত্রী দেবযানী চাটার্জী। তাই নিলেন একটা বড়সড় সিদ্ধান্ত।

নায়িকা স্বীকার করেছেন কোনদিন সেরকম অর থে স্ট্রাগল করতে হয়নি কাজ পেতে। কিন্তু এতগুলো বছর পর যখন পিছন ফিরে দেখেন তখন নিজেই নিজেকে প্রশ্ন করেন শিল্পী হিসেবে কি অবদান রয়েছে তাঁর? এত কিছু ভেবে এবার পিছিয়ে আসছেন নায়িকা।

আসলে নায়িকার অভিযোগ এতগুলো বছর ধরে একই ধরনের চরিত্রে অভিনয় করে চলেছেন তিনি। তাঁর বয়স অনুযায়ী তাঁকে নেগেটিভ অথবা পজিটিভ শাশুড়ির চরিত্রেই অভিনয় করতে দেওয়া হচ্ছে। এমনকি নায়িকা এও অভিযোগ করেছেন যে এখন যে কেউ নায়ক নায়িকা হতে পারে। যারা কিছুই জানে না, অভিনয় জানে না, কথা বলতে পারে না, উচ্চারণ পর্যন্ত ঠিক নেই তারাও মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পেয়ে যাচ্ছে সহজে। আর যারা সত্যিকারের কাজ জানে তারা পিছিয়ে পড়ে থাকছে।

দেবযানী অথবা তাঁর সমসাময়িক নায়িকারা যখন টিভিতে কাজ করা শুরু করেছিলেন তখন গল্পে অনেক বৈচিত্র ছিল, দাবি দেবযানীর। ছোট ছোট চরিত্র থেকে আস্তে আস্তে মুখ্য চরিত্রে সুযোগ পেয়েছেন। কিন্তু এখন সবটাই উল্টো হয়ে গেছে।

তাই আপাতত আর টেলিভিশনে দেখা যাবে না এই নায়িকার মুখ। কিছুদিন টিভি থেকে তিনি বিরতি নিচ্ছেন। বড়পর্দা বা OTT -র জন্য এখন ভাবনা চিন্তা করছেন দেবযানী যেখানে তার বয়সী মহিলাদের জন্য অন্য চরিত্রের সুযোগ আসতে পারে।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Trending