Connect with us

Tollywood

ঐন্দ্রিলা জীবনে আসার পর থেকে শনির দশা চলছে অঙ্কুশ হাজরার! চাইলেও সরাতে পারেননি সেলিব্রিটি প্রেমিকাকে! “মজা করে হলেও আসল সত্যিটা বলে ফেললে দাদাভাই”, জুটলো চরম কটাক্ষ

Published

on

টলিউড বা বলিউড বা অন্য যে কোনো বিনোদন দুনিয়া হোক যাদেরকে আমরা সেলিব্রেটি মানুষ মনে করি, তারাও আসলে রক্ত মাংসের মানুষ। তাই দাঁতের জীবনেও প্রেম বিরহ বিচ্ছেদ বন্ধুত্ব এই আবেগগুলি একেবারেই সাধারণ মানুষদের মতোই। যেহেতু সকলেই জনগণের অত্যন্ত পরিচিত সেলিব্রেটি হয়ে ওঠেন নিজের অভিনয়ের মাধ্যমে তাই তাদের জীবনের ব্যক্তিগত তথ্য সামনে আসলেই তা নিয়ে মুখরোচক গল্প তৈরি হয়।

অন্যতম এক চর্চিত এবং জনপ্রিয় জুটি হলো অঙ্কুশ হাজরা এবং ঐন্দ্রিলা সেনের সম্পর্ক। দশ বছরের বেশি হয়ে গেল দুজন একে অপরের সঙ্গে প্রেম করছেন জমিয়ে। যদিও কবে বিয়ে করবেন সে নিয়ে এখন অব্দি কেউ কোন তথ্য দেননি। তবে দুজন যে প্রেমে বেশ জমিয়ে আছেন তা বলাই বাহুল্য।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ankush (@ankush.official)

বহুবার ভক্তরা জানতে চেয়েছে দুজনের কাছেই যে কবে তারা বিয়ে করার পরিকল্পনা করছেন কিন্তু কেউই সেই তথ্য সামনে আনতে চান না। সম্প্রতি দুজন জুটি বেঁধে একসঙ্গে অভিনয় করতে শুরু করেছেন। তবে দুজনের প্রেম নিয়ে চর্চা খুব কম নয়।

এবার সামনে এলো অঙ্কুশ এবং ঐন্দ্রিলার একটি পুরনো ভিডিও যেখানে কিভাবে দুজনের প্রেম শুরু হয়েছিল তা নিয়ে কিছু গোপন তথ্য ফাঁস করে দিয়েছেন অঙ্কুশ। আমরা সকলেই জানি ব্যক্তিগতভাবে অঙ্কুশ হাজরা প্রচন্ড হাস্যকৌতুক করতে ভালোবাসেন। এখানেও সেভাবেই হাসির ছলে নিজেদের প্রেম শুরুর বিষয়টা সুন্দর করে বলে দিয়েছেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ankush (@ankush.official)

অঙ্কুশ জানিয়েছেন সেটা ছিল ২০১১ সাল যখন নায়কের জীবনে দুর্ভাগ্যবশত এক মহিলা আসেন এবং ১০ বছর হয়ে যাওয়ার পরেও তাকে সরাতে পারেননি নিজের জীবন থেকে। ঐন্দ্রিলা পেছন থেকে আবার সঙ্গে সঙ্গে বলে ওঠেন দশ বছর ধরে শনির দশা চলছে। অঙ্কুশ নাকি খুব চেষ্টা করেছিলেন সরানোর। তাই দশ বছর হয়ে গেলেও সেই দুর্ভাগ্যজনক ঘটনাকে অঙ্কুশ নিজের সঙ্গে বয়ে নিয়ে বেড়াতে বাধ্য হচ্ছেন। তারপরেই বললেন সেই মেয়েটি কে? তারপরে ঐন্দ্রিলা সঙ্গে সঙ্গে উত্তর দিয়ে বলে ওঠেন অবশ্যই আমি।

তব এত হাসি ঠাট্টার পরে অবশ্যই নিজের প্রেমিকাকে জড়িয়ে ধরে চুম্বন করে নিজের ভালোবাসা প্রকাশ করলেন অঙ্কুশ। আদর করে ঐন্দ্রিলার গাল টিপে দিলেন প্রেমিক। তবে এই নিয়েই কটাক্ষ শুরু হয়ে গেছে ইতিমধ্যে। বহু মানুষ লিখে ফেলেছে যে তাহলে মজা করে হলেও সত্যি কথাটা বলে ফেললে দাদাভাই। পাশাপাশি বহু মানুষ শুভেচ্ছা জানিয়েছে দুজনকে আগামী জীবনের জন্য। অনেকে আবার এও লিখেছে যে ১০ বছর ধরে একটা সম্পর্ক টেনে নিয়ে যাওয়া এত সহজ ব্যাপার নয় তাই দুজনের জন্য অনেক ভালোবাসা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ankush (@ankush.official)

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Trending