Connect with us

Food

ভাত কিংবা রুটি সবেতেই স্বাদ খাঁটি! এভাবে পটল রান্না করলে আমিষ ভুলে যাবে সবাই, দেখুন রেসিপি

Published

on

নিরামিষ রান্না মানেই অনেক বাড়িতে চিন্তা হয় কী রান্না করা যায়। এমন কিছু রান্না করতে হবে যেটা ভাত রুটি সবকিছু দিয়ে খাওয়া যায় এবং ছোট থেকে বড় সকলের পছন্দ হয়। তেমনই এক জমজমাট রেসিপি দিলাম।

নাম পটল পাসিন্দা। নাম অনেকেই শোনেননি। খেতেও সুস্বাদু। ভাত বা রুটি দিয়ে লাঞ্চ বা ডিনার করতে পারেন অনায়াসে। একবার ট্রাই করুন সবাই হাত চেটে খাবে।

উপকরণ:

১. কচি পটল

২. পেঁয়াজ কুচি

৩. কাঁচা লঙ্কা

৪. টমেটো পেস্ট

৫. আদা রসুন বাটা

৬. হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো, কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো

৭. ধনে গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো, গরম মশলা গুঁড়ো

৮. ছোট এলাচ, দারুচিনি, লবঙ্গ

৯. কাজু বাদাম, দুধ

১০. পরিমাণ মত নুন

১১. রান্নার জন্য তেল

পদ্ধতি: কচি পটলগুলোর খোসা ছাড়িয়ে ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিয়ে পটলের গায়ে ছুরি দিয়ে চিরে সামান্য নুন হলুদ মাখিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। কড়ায় তেল দিয়ে ভেজে তুলে আলাদা করে রাখুন। কড়ায় থাকা তেলের মধ্যে ছোট এলাচ, দারুচিনি, লবঙ্গ দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়েচেড়ে কড়ায় পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভাজুন। পেঁয়াজ ভাজা হয়ে এলে সামান্য কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো দিন। কড়ায় টমেটো বাটা দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে ছেড়ে নিয়ে একে একে আদা রসুন বাটা, পরিমাণ মত করে হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো ও নুন দিয়ে সবটাকে মিডিয়াম আঁচে তেল ছাড়া পর্যন্ত কষতে থাকুন। কষানো হয়ে গেলে ভেজে রাখা পটল কড়ায় দিয়ে দিতে হবে। আর সামান্য জল দিয়ে পটল ও মশলাকে ভালোভাবে মিক্স করুন।মিক্সিতে কিছুটা কাজু বাদাম আর হাফ কাপ মত দুধ দিয়ে কাজু ও দুধের পেস্ট তৈরী করে পটল ও মশলার মধ্যে কাজুর পেস্ট দেওয়ার পর আঁচ কমিয়ে কয়েক মিনিট কষিয়ে নেবেন। ফুটতে শুরু করলে সামান্য চিনি, গরম মশলা গুঁড়ো আর দুটো কাঁচা লঙ্কা দিয়ে ঢাকা দিয়ে ৫-৭ মিনিট রান্না করুন। ৫ মিনিট পর ঢাকনা খুলে ১ চামচ ঘি দিয়ে সবটাকে একবার নেড়েচেড়ে নিয়ে আরও মিনিট ২ রান্না করে নিলেই পটল পাসিন্দা একেবারে তৈরী।

Trending